Home ইসলাম নামায মুমিনের জন্য মি‘রাজ

নামায মুমিনের জন্য মি‘রাজ

by admin
০ comment

নামায মুমিনের জন্য মি‘রাজ

 মোহাম্মদ আবুল হোসাইন চৌধুরী

নামায মু’মিনের জন্য মি‘রাজ স্বরূপ। প্রিয় রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াাসাল্লাম যেমন মি‘রাজে গিয়ে মহান আল্লাহ্ রব্বুল ‘আলামীনের সাথে কথা বলেছিলেন, মু’মিন বান্দাও তেমনি নামাযে সূরা ফাতিহার মাধ্যমে আল্লাহ্র সাথে কথা বলে থাকেন :
১.হাদীস শরীফে এসেছে, আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছি, আল্লাহতায়ালা বলেন : ‘আমি সালাতকে আমার ও আমার বান্দার মধ্যে অর্ধেক অর্ধেক করে ভাগ করে নিয়েছি। আর আমার বান্দা যা চাইবে, তা সে পাবে।’
অত:পর বান্দা যখন বলে- ‘আলহামদু লিল্লাহি রব্বিল ‘আলামীন’ (সমস্ত প্রশংসা জগতসমূহের প্রতিপালক আল্লাহরই প্রাপ্য)। আল্লাহ্ তখন বলেন, ‘বান্দা আমার প্রশংসা করেছে।’
আর যখন সে বলে- ‘আর-রহমানির রাহীম’ (যিনি দয়াময় পরম দয়ালু)। আল্লাহতায়ালা তখন বলেন, ‘বান্দা আমার গুণাবলী বর্ণনা করেছে।’
অত:পর যখন সে বলে- ‘মালিকি ইয়াওমিদ্দীন’ (কর্মফল দিবসের মালিক)। আল্লাহ্ বলেন, ‘আমার বান্দা আমার মহিমা ও বুযুর্গী বর্ণনা করেছে।’ আর কখনো বলেছেন, ‘আমার বান্দা (তার সব কাজ) আমার ওপর সোপর্দ করেছে।’
যখন সে বলে- ‘ইয়্যাকা না’বুদু ওয়াইয়্যাকা নাসতা‘ঈন’ (আমরা শুধু আপনারই ইবাদত করি, শুধু আপনারই সাহায্য প্রার্থনা করি)। আল্লাহ বলেন, ‘এটা আমার ও আমার বান্দার মধ্যের ব্যাপার। আর আমার বান্দা যা চাইবে,তা সে পাবে।’
যখন বান্দা বলে- ‘ইহদিনাস সিরাত্বাল মুসতাক্বীম, সিরাত্বল্লাযীনা আন‘আমতা ‘আলাইহিম, গায়রিল মাগদ্বূবি আলাইহিম, ওয়ালাদ্বল্লীন’ (আমাদেরকে সরল পথ দেখান, তাদের পথে, যাদেরকে আপনি অনুগ্রহ দান করেছেন, তবে তাদের পথে নয়, যারা ক্রোধে নিপতিত (ইয়াহূদী) ও পথভ্রষ্ট (খ্রিস্টান)। তখন আল্লাহ বলেন, ‘এটি কেবল আমার বান্দার জন্য। আর আমার বান্দা যা চাইবে, তা সে পাবে।’ (সহীহ মুসলিম, ২য় খ- হাদীস নং ৭৬২)

You may also like